এগারখানের ক্রিকেটের ইতিবৃত্ত

By নভেম্বর ১০, ২০১৬ নভেম্বর ১৩, ২০১৯ ইতিহাস ও ঐতিহ্য

অতীত কাল থেকে খেলাধুলার জগতে এগারোখানবাসীর পদচারনা ছিল উল্লখ করার মত। আগেকার দিনে হাডুডু , লাঠি খেলার মত দেশীয় খেলাধুলাই ছিল বিনোদন যোগানোর অন্যতম খোরাক । আধুনিক খেলা বলে ছিল শুধুই ফুটবল। বর্তমান যুগের জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট তখনও এগারোখানের খেলাধুলার জগতে জায়গা করে নিতে পারেনি । এগারখানের ক্রিকেট খেলার সূত্রপাত হয় ১৯৮৭ সালে। এগারখানের ক্রীড়া জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র , এক সময়ের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় সুধাংশু সরকারের(দোগাছি) নিজস্ব উদ্যোগ আর অক্লান্ত পরিশ্রমে
এগারখানে ক্রিকেট খেলা শুরু হয়। কিন্তু শুরুর দিকের গল্পটা ছিল অনেক কষ্টের ,
বলছিলেন সুধাংশু সরকার। তখন তারা গরুর কাঁধে দেওয়া জোয়াল কেটে তৈরি করতেন ব্যাট আর বল বলতে ছিল টেনিস বল। সেই জোয়াল দিয়ে তৈরি ব্যাট আর টেনিস বল নিয়ে গোচর মাঠে চলতো ক্রিকেট অনুশীলন। তখন যারা যারা ক্রিকেট খেলতেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল , বঙ্কীম ভৌমিক , নিরাঞ্জন সরকার, সুরাঞ্জন সরকার, মুকুল সরকার, শেখর ভৌমিক, সুধাংশু সরকার, সুভাষ ঘোষাল, মৃণাল হালদার, বিমল হালদার, মিলন বিশ্বাস, সঞ্জীবন মল্লিক । তখন খেলায় আম্প্যায়ারের দায়িত্ব পালন করতেন বাকড়ী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রশান্ত বাবু এবং বাবু রণজিৎ কুমার ঘোষাল।

ধীরে ধীরে খেলার সরঞ্জামের উন্নতি হতে থাকে । তবে সেটাও এই ক্রিকেট প্রেমীদের
অনেক কষ্টের ফসল। তখন দলের সবাই মিলে একসাথে কাজ করতে যেতেন , যেমন কারো ঘর সরানো, ধান কাঁটা, মাটি কাঁটা ইত্যাদি । এসব কাজ করে যে টাকা আসতো তা দিয়ে খেলার সরঞ্জাম কেনা হতো। পরবর্তীতে ১৯৯০ সালে ততকালীন সাংসদ , জনাব শাহ্‌ হাদীউজ্জামানের প্রদত্ত অনুদানে কেনা হয় ক্রিকেট খেলার পরিপূর্ণ সরঞ্জাম। একইসাথে গোচরের মাঠটিকেও করা হল খেলার সম্পূর্ণ উপযোগী । নতুন মাত্রা যোগ হল এগারখানের ক্রিকেটে।

তারপর থেকে গোচরের মাঠে বিভিন্ন সময় খেলার জন্য এগারখানের বাইরের যেমন,
মুলিয়া, নড়াইল, বাঘারপাড়া, ভুলবাড়িয়া , বাউলিয়া সহ বভিন্ন জায়গার দলকে
আমন্ত্রণ জানানো হতো। যে খেলাগুলীর মধ্যে বেশীরভাগেই জয়লাভ করতো এগারখানের দামাল ছেলেরা। নব্বইয়ের দশককে বলা হয় এগারখানের ক্রিকেটের
স্বর্ণযুগ।যেমন বাইরের দল আসতো এগারখানে তেমনি এগারখানের দল ও খেলতে যেত বিভিন্ন অঞ্চলের আমন্ত্রণে। সেখানেও ছিল এগারখানবাসীর জয়ের ছড়াছড়ি।
বর্তমানে এগারখানের সেই ক্রিকেট ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে থ্রী স্টার ক্লাব। ২০০৭
সালে গোচরের মাঠের এক কোনে এই ক্লাবটি গড়ে ওঠে। ক্লাবের অর্থায়নে নড়াইল
থেকে প্রশিক্ষক নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় নতুন প্রজন্মের খেলোয়াড়দের।
পাশাপাশি সুধাংশু সরকার ও মুকুল সরকার সময় করে এসে প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ
দিয়ে থাকেন তাদের উত্তরসুরীদের ।

Join the discussion ২ Comments

Leave a Reply