নির্বাহী কমিটি (২০১৮-২০২০)

সভাপতি , ইডিএফ

ঘনশ্যাম মজুমদার

Far far away, behind the word mountains, far from the countries Vokalia and Consonantia, there live the blind texts. Separated they live in Bookmarksgrove right at the coast of the Semantics, a large language ocean. A small river named Duden flows by their place and supplies it with the necessary regelialia. It is a paradisematic country, in which roasted parts of sentences fly into your mouth.
সহ-সভাপতি , ইডিএফ

স্বপন কুমার অধিকারী

সাধারণ সম্পাদক

প্রকৌশলী অলোক রায়

ব্যবস্থাপনা পরিচালক, অংকন লিমিটেড।
প্রোপাইটর, অংকন বিল্ডার্স।

প্রকৌশলী আলোক কুমার রায় ১৯৭৩ সালের ৬ই জানুয়ারী এগারখানের বাকড়ী গ্রামে রায় বাড়ী জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাকড়ী বহুমুখী মাধ্যমিক থেকে ১৯৮৮ সালে বিজ্ঞান বিভাগে পাশ করে ঐতিহ্যবাহী নড়াইল সরকারী ভিক্টোরিয়া কলেজে উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তি হন। উচ্চমাধ্যমিক পাসের পর ভর্তি হন খুলনা বি আই টির ( বর্তমান কুয়েট) সিভিল বিভাগে। পড়াশুনার পাঠ চুকিয়ে ১৯৯৮ সালে “ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট কনসালট্যান্ট” নামক আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন পরামর্শ দাতা কোম্পানিতে “স্ত্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার” হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন।ইঞ্জিঃ আলোক কুমার রায় ব্যাক্তি জীবনে একজন ভীষণ মানসিক শক্তি সম্পন্ন ব্যাক্তি। সেই মানসিক শক্তিকে পূঁজি করে ২০০১ সালে তিনি স্বেচ্ছায় চাকরীথেকে অবসর গ্রহণ করেন এবং আত্মপ্রকাশ করেন একজন উদ্যোগতা হিসেবে। গড়ে তোলেন নিজের কোম্পানি “অংকন লিমিটেড”। হাটি হাটি পা পা করে চলতে চলতে বর্তমানে কোম্পানীটি REHAB (Real Estate & Housing Association of Bangladesh) এবং RAJUK ((Rajdhani Unnayan Kartripakkha) এর সদস্যপদ গ্রহণ করে ঢাকার বুকে ব্যাবসা পরিচারনা করছে । বর্তমানে কোম্পানরি অধনে প্রায় ২০০-২৫০ লোক কর্মরত রয়েছে । অংকন স্বপ্নপূরী, অংকন প্রভাতী, অংকন নার্গিস কুঞ্জু এ তিনটি ভবন হস্তান্তর করেও তার কোম্পানির অধীনে ঢাকার মিরপুর ও মোহাম্মদপুর ৬টি ৯তালা ভবনের কাজ চলমান রয়েছে ।

প্রকৌশলী আলোক কুমার রায় বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন থেকে তার ফেলোশিপ ( F 9179) অর্জন করেন। রাজউক (রাজধানী উন্নয়ন কতৃপক্ষ ) এর একজন সদস্য এই প্রকৌশলী Engineering Code of contact & Code of ethics মেনে ভবন ডিজাইন ও নির্মান করার জন্যে ২০১৯ সালে Institute of Engineers, Bangladesh এর Professional Registration Board থেকে Professional Engineer হিসাবে স্বিকৃতী সনদ No. PEng-০১/০৩৫৯ অর্জন করেন।

সহ-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক

সুব্রত সরকার বাপ্পা

সহকারী ব্যবস্থাপক (প্রকল্প বিতরণ), গিগাটেক লিমিটেড (বেক্সিমকো গ্রুপের একটি প্রযুক্তি কোম্পানি)

কোষাধ্যক্ষ

পংকজ রবি রায়

রিজিওনাল ম্যানেজার ( অবঃ) ব্রাক।

পঙ্কজ কুমার রায় ১৯৮৮ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উদ্ভিদ বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর পাশ করেন। এরপর তিনি ব্রাকে কর্মজীবন শুরু করেন । চাকরীর পাশাপাশি তিনি সেরি কালচারের (পি,জি,ডি,এস) উপর এক বছরের একটি ডিপ্লোমা কোর্স করেন। বর্তমানে তিনি নাটরে ব্রাক লার্নিং ডিভিশনে সিনিয়র অপারেশন অফিসারের দায়িত্ব পালন করছেন। তার প্রিয় শখ ছিনেমা দেখা।
শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক

ডাঃ আশিস বিশ্বাস

ডাঃ আশিষ কুমার বিশ্বাস এগারখানের বাকড়ী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাকড়ী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে এস এস সি পাশ করেন। এরপর তিনি ঢাকা ডেন্টাল কলেজ থেকে ২০০৪ সালে পড়াশুনা শেষ করে করে পি জি হাসপাতালে তার ইন্টার্নি পর্ব শেষ করেন। তিনি ছিলেন একজন স্বাধীনচেতা মেধাবী মানুষ । তাই অন্যের অধীনে না গিয়ে পড়াশুনার পাঠচুকানোর পরই নিজের মত কিছু করার চেষ্টা করলেন। আর সেই চেষ্টার ফসল হিসেবেই প্রতিষ্ঠিত হল ‘স্মাইল ডেন্টাল কেয়ার’ যেটার কর্ণধার তিনি নিজেই।

নিজের প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি খুলনা ডায়াবেটিক সমিতিতেও সেবা দিয়ে থাকেন। ছাত্র জীবন থেকেই তিনি ছিলেন অসাধারণ সাংগঠনিক ক্ষমতা সম্পন্ন মানুষ। এগারখানকে আলোকিত করার সপ্ন তার আজীবনের। ছাত্র জীবনে এগারখানে বিভিন্ন রকম জাতীয় দিবস যেমন, ২১ শে ফেব্রুয়ারী, ২৬শে মার্চ, ১৬ই ডিসেম্বর আড়ম্বরের সাথে উদযাপনে তিনি সব সময় অগ্রণী ভূমিকা পালন করতেন।

দপ্তর সম্পাদক

বিলাস সরকার

সহকারী শিক্ষক, আফরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

বিলাস কুসুম সরকার ২০০৭ সালে যশোরের সরকারী এম এম কলেজ থেকে গণিতে স্নাতকোত্তর পাশ করেন। এর পর তিনি একে ব্রাক, আশার আলো , এসিআই , জাইকা, কেয়ারে বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। অবশেষে নিজ জন্মভূমি এগারখানের প্রতি গভীর ভালোবাসার টানে ফিরে আসেন বাড়ীতে এবং নিজ এলাকায় শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভুমিকা পালনের উদ্দেশ্যে আফরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাকতা পেশায় যোগদান করেন। তিনি এখনো পর্যন্ত সেই একই পেশায় কর্মরত আছেন।

বাস্তব জীবনে তিনি বহু গুনে গুণান্বিত একজন মানুষ এগারোখানের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তার দরাজ কণ্ঠের উপস্থাপনায় মুগ্ধ হয় হাজারো দর্শক। এছাড়াও তিনি তার গান ,আবৃতি দিয়ে দর্শকের মন জয় করে নিতে পারেন অনায়াসেই। এছাড়াও তিনি একজন দক্ষ কম্পিউটার অপারেটর ।

উক্তিঃ একটা দিন একটা নতুন ইতিবাচক স্বপ্ন বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।

নির্বাহী সদস্য

উজ্জ্বল বৈরাগী