ঔষধ বা ইনসুলিন ছাড়াই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন যে ভাবে

পরামর্শ দাতাঃ আশিস অধিকারী, ইয়োগা ইন্সট্রাক্টর, ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়।

আপনি চাইলে আপনাকে আর ডায়াবেটিস সঙ্গে নিয়ে বাঁচতে বা মরতে হবে না। জ্বি হ্যাঁ, কথাটা শুনে আপনি অবাক হচ্ছেন,কিন্তু এটা খুবই সত্যি কথা! ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রােগীদের আর সারা জীবন ধরে ওষুধ খেতে হবে না বা ইনসুলিনের ওপরওনির্ভর করে থাকতে হবে না।
বর্তমান চিকিৎসা শাস্ত্র একটা তথ্যের দিকে ইশারা করেছে, আর তা হলাে আপনি যদি ডায়াবেটিসের ওষুধের সাহায্যে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ বা কম করতে চান তার মানে হলাে আপনি আরাে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। মনে রাখবেন আপনি যদি আপনার আগের স্বাস্থ্য ফিরে পেতে চান তাহলে একজন মাত্র মানুষই আপনাকে সাহায্য করতে পারে- আর সে হল আপনি স্বয়ং। আর ওষুধ হিসেবে খাবার- এ বিজ্ঞানের (সায়েন্স অফ ফুড) ওপর ভিত্তি করে নতুন যে সমস্ত প্রমাণ পাওয়া গেছে তার সাহায্যে এমনটা করা যেতে পারে।

 

নিম্নোক্ত পদ্ধতি পালন করলে আপনি ঔষধ বা ইনসুলিন ছাড়াই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

স্টেপ ১: সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত শুধুমাত্র তিন বা চাররকমের ফল খান, যেমন ধরুন আম, কলা আঙুর ইত্যাদি।
*ন্যনতম কতটা পরিমাণ ফল আপনি গ্রহণ করতে পারবেন=
আপনার শরীরের ওজন কেজি X১0= গ্রাম
উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, ৭০ কেজি ওজন বিশিষ্ট ব্যক্তির ১২টা বাজার আগে কমপক্ষে চার প্রকারের ৭০০ গ্রাম ফল খাওয়া উচিত।
স্টেপ ২: নিজের দুপুর ও রাতের খাবার সর্বদা দুটি প্লেটে খান।
প্লেট ১ এবং প্লেট ২

প্লেট ওয়ান-এ চার প্রকারের এমন সবজি থাকতে হবে, যেগুলি আপনি কাঁচা খেতে পারেন। যেমন ধরুন গাজর, টমেটো, মূলাে,শশা প্রভৃতি।
প্লেট ওয়ান এর ন্যূনতম মাত্রা আপনার ওজন কেজি X৫= গ্রাম
উদাহরণ স্বরূপ ৭০ কেজি ওজন বিশিষ্ট ব্যাক্তির চার প্রকার বিভিন্ন সবজি মিশিয়ে প্রায় ৩৫০ গ্রাম সবজি খাওয়া উচিত।

প্লেট টু- তে লাল চালের ভাতের সাথে কম তেল ও নুন দিয়ে রান্না করা, বাড়িতে বানানাে নিরামিষ খাদ্য গ্রহণ করুন।

প্রতিদিন ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা যোগ ব্যায়াম করুন,মন খুলে হাসুন,পজিটিভ থাকুন এবং ৪০ মিনিট সকালের রােদ গায়ে মাখান।

যেগুলি থেকে দূরে থাকবেনঃ

  • দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পদার্থ
  • অন্যান্য মাংসাহার
  • মাল্টিভিটামিন টনিক এবং ক্যাপসুল
  • রিফাইন্ড ও প্যাকেটে প্রাপ্ত খাদ্য।

আরো বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুনঃ ০১৯১৬৪৯৬৪০০

Leave a Reply